NATIONAL UNIVERSITY NEWS UPDATE.

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় জানালেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. বদরুজ্জামান বলেছেন, আমরা কলেজ খোলার অপেক্ষায় আছি। কলেজ চালু হলেই স্থগিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। নতুন সূচিও দেওয়া হবে। একই দিনে একাধিক বর্ষের পরীক্ষা নিয়ে পরীক্ষা জট কমিয়ে ফেলার চিন্তা রয়েছে বলে তিনি জানান।

তিনি আরো বলেন, তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খুলে যদি এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হয়, তাহলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ও একই পথে হাঁটবে। কলেজে পাঠদান বন্ধ থাকলেও পরীক্ষা নেওয়া হবে। এটাও জট কমানোর একটি উত্তম পথ বলে মনে করা হচ্ছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ সমূহে নন-এমপিও শিক্ষকদের একটি তালিকা প্রেরণ সংক্রান্ত নোটিশ

ফেইসবুকে চাকরির সর্বশেষ আপডেট পেতে এখনই Job Circular - নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি গ্রুপ ও

নিয়মিত চাকরির আপডেট পেতে আমাদের গ্রুপে জয়েন করুন

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের মতে, যেহেতু এইচএসসি পরীক্ষার্থীর চেয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বয়সে বড়। তাই এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হলে সে আলোকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা হবে। তাছাড়া পরীক্ষা জট কমাতে ক্রাশ প্রোগ্রাম নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে একের পর এক পরীক্ষা নেওয়া হবে বলে জানান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন অর রশিদ। তিনি বলেছেন, ছাত্রদের উদ্দেশ্যে বলব, তারা যেন বাড়িতে বসে পড়ালেখা করে। এজন্য যে, এই দুর্যোগ কাটিয়ে উঠার পর আমরা একের পর এক পরীক্ষা নিতে থাকব। আগে যেমন আমরা ক্রাশ প্রোগ্রাম করে ওভারকাম করেছি, সেই রকম মেথড এখানেও এপ্লাই করতে হবে।

 

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি পাস কোর্স ২য় বর্ষ ও ৩য় বর্ষ, মাস্টার্স শেষ পর্ব পরীক্ষা এপ্রিলের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল। ডিগ্রী ২য় ও মাস্টার্স শেষ বর্ষের রুটিনও প্রকাশ করা হয়েছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমণের কারণে এসব পরীক্ষা স্থগিত রাখা হয়।

 

এছাড়া আগস্ট পর্যন্ত মাস্টার্স প্রিলিমিনারি, অনার্স প্রথম বর্ষ পরীক্ষা হবারও কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে এই পরীক্ষার রুটিন করা যায়নি। অনার্স ৪র্থ বর্ষের তত্ত্বীয় পরীক্ষা অর্ধেক হবার পর বন্ধ হয়ে যায় প্রতিষ্ঠান। এদিকে আটকে আছে অনার্স ৩য় বর্ষের ব্যবহারিক পরীক্ষাও। এছাড়া বিভিন্ন প্রফেসনাল কোর্সের শতাধিক পরীক্ষা আটকে আছে। National University Exam Time 2020.