একাদশে ভর্তি কাল শুরু, চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত

একাদশে ভর্তি কাল শুরু, চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত

বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ভর্তির কাজ শুরু হচ্ছে কাল রোববার। চলবে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। আগে আবেদন গ্রহণ, বাছাই, মাইগ্রেশনসহ অন্যান্য ধাপ শেষ করা হয়েছে। গত ৯ আগস্ট শুরু হয়েছিল ভর্তির আবেদন গ্রহণ প্রক্রিয়া।
মফস্বল বা পৌর (উপজেলা) এলাকায় অবস্থিত এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি সর্বসাকল্যে এক হাজার টাকা, পৌর (জেলা সদর) এলাকার প্রতিষ্ঠানের জন্য দুই হাজার টাকা এবং ঢাকা ছাড়া অন্যান্য মহানগর এলাকায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো তিন হাজার টাকার বেশি আদায় করতে পারবে না।

আর ঢাকা মহানগর এলাকায় অবস্থিত এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তিতে পাঁচ হাজার টাকার বেশি আদায় করতে পারবে না। তবে ঢাকা মহানগর এলাকায় অবস্থিত আংশিক এমপিওভুক্ত বা এমপিও-বহির্ভূত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও এমপিও-বহির্ভূত শিক্ষকদের বেতন-ভাতা দেওয়ার জন্য শিক্ষার্থী ভর্তির সময় ভর্তি ফি, সেশন চার্জ, উন্নয়ন ফিসহ বাংলা মাধ্যমে সর্বোচ্চ সাড়ে সাত হাজার টাকা এবং ইংরেজি ভার্সনে মাধ্যমে সর্বোচ্চ সাড়ে আট হাজার টাকা নিতে পারবে। তবে উন্নয়ন খাতে কোনো প্রতিষ্ঠান দেড় হাজার টাকার বেশি আদায় করতে পারবে না।

ফেইসবুকে চাকরির সর্বশেষ আপডেট পেতে এখনই Job Circular - নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি গ্রুপ ও

নিয়মিত চাকরির আপডেট পেতে আমাদের গ্রুপে জয়েন করুন

করোনাভাইরাসের কারণে ভর্তির সময় একাডেমিক ট্রান্স ক্রিপ্ট, প্রশংসাপত্রসহ কোনো প্রকার প্রামাণ্যপত্র জমা নিতে হবে না বলে জানিয়েছে ঢাকা বোর্ডের সচিব তপন কুমার সরকার।

তবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে বিদ্যমান পরিস্থিতিতে অভিভাবকদের আর্থিক অস্বচ্ছতার বিষয় বিবেচনা করে দরিদ্র, মেধাবী ও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ভর্তিতে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ওই সব ফি যত দূর সম্ভব মওকুফের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ঢাকা শিক্ষাবোর্ড।
শিক্ষার্থীদের কলেজে ভর্তির ক্ষেত্রে কলেজ স্বাস্থ্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটলে সব দায় কলেজ কর্তৃপক্ষকে বহন করতে হবে বলে জানিয়েছে ঢাকা বোর্ড।

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ভর্তিযোগ্য শিক্ষার্থীদের তালিকা মাদ্রাসাগুলোর তাদের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে প্রকাশের ব্যবস্থা করতে হবে। কোটার শিক্ষার্থীদের উপযুক্ত সনদ দেখে ভর্তি করাতে হবে। মফস্বল, পৌর ও মেট্রোপলিটন এলাকার বেসরকারি কলেজ-মাদ্রাসার ভর্তিতে সর্বোচ্চ ফি নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। এমপিওভুক্ত মফস্বল বা পৌর (উপজেলা) এলাকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো একাদশ শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তিতে সেশন ফিসহ ভর্তি ফি সর্বসাকল্যে এক হাজার টাকা, পৌর (জেলা সদর) এলাকায় দুই হাজার টাকা এবং ঢাকা মহানগর ছাড়া অন্য মেট্রোপলিটন এলাকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো তিন হাজার টাকার বেশি আদায় করতে পারবে না।

মেট্রোপলিটন এলাকায় অবস্থিত এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তিতে পাঁচ হাজার টাকার বেশি অর্থ আদায় করতে পারবে না। ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার আংশিক এমপিওভুক্ত বা এমপিও-বহির্ভূত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উন্নয়ন ও এমপিও-বহির্ভূত শিক্ষকদের বেতন-ভাতা দেওয়ার জন্য শিক্ষার্থী ভর্তির সময় ভর্তি ফি, সেশন চার্জ, উন্নয়ন ফিসহ বাংলা মাধ্যমে সর্বোচ্চ সাড়ে সাত হাজার টাকা এবং ইংরেজি ভার্সনে সর্বোচ্চ সাড়ে আট হাজার টাকা নিতে পারবে।